আজকের দিন তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, রবিবার, ৬ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৩০ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী, রাত ১:৩৪
সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধুলা, প্রধান সংবাদ শ্রীলঙ্কাকে ১৯৯ রানের টার্গেট দিলো জিম্বাবুয়ে

শ্রীলঙ্কাকে ১৯৯ রানের টার্গেট দিলো জিম্বাবুয়ে


পোস্ট করেছেন: ঢাকা টেলিগ্রাফ | প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ২১, ২০১৮ , ৩:৫৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: খেলাধুলা,প্রধান সংবাদ


দারুণ সূচনা এনে দিয়েছিলেন মাসাকাদজা। উদ্বোধনী জুটিতেই ৪৪ রান তুলে বড় সংগ্রহের আভাস দিয়েছিলেন তারা। তবে একমাত্র টেলর ছাড়া তাদের দেখানো পথে হাঁটতে পারলেন না বাকি ব্যাটসম্যানরা। ফলে বড় স্কোরও গড়তে ব্যর্থ হলো জিম্বাবুয়ে। ৪৪ ওভারে ১৯৮ রানেই গুটিয়ে গেছে দলটি।

রোববার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার। তার সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করেন দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সলোমন মির।

দলীয় ৪৪ রানে থিসারা পেরেরার বলে উপুল থারাঙ্গার তালুবন্দি হয়ে ফেরেন মাসাকাদজা। ফেরার আগে ২০ রান করেন এ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ভালো শুরু এনে দিলেও তার দেখানো পথে হাঁটতে পারেননি ক্রেইগ আরভিন। ক্রিজে সেট না হতেই সেই থিসারার বলে থারাঙ্গার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।

এর পর বেশিক্ষণ ক্রিজে স্থায়ী হতে পারেননি সলোমন মিরও। তিনিও শিকার থিসারা পেরেরার। এবার থারাঙ্গা নয়, নিরোশান ডিকভেলার মুঠোবন্দি করে মিরকে ফিরে যেতে বাধ্য করেন লংকান এ অলরাউন্ডার।

মিরের পর ক্রিজে আসেন সিকান্দার রাজা। তবে এদিন আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি তিনি। দলীয় ৭৩ রানে লক্ষণ সান্দাকানের বলে কুশল মেন্ডিসের অসাধারণ ক্যাচ হয়ে ফেরেন ছন্দে থাকা এ ব্যাটসম্যান। এতে বিপর্যয়ে পড়ে গ্রায়েম ক্রেমারের দল।

সেখান থেকে দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন ব্রেন্ডন টেলর ও ম্যালকম ওয়ালার। তাদের জুটিতে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াচ্ছিল জিম্বাবুয়ে। তবে ভালো খেলতে খেলতে হঠাৎই থেমে যান ওয়ালার। দলীয় ১৩৯ রানে লক্ষণ সান্দাকানের শিকার হয়ে ফেরেন তিনি। ফেরার আগে করেন ৩৫ বলে ২ চারে ২৪ রান।

ওয়ালারের বিদায়ের পর মুরকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন টেলর। তবে তাকে সঙ্গ দিতে ব্যর্থ হন মুর। কিছুক্ষণ পরই মেন্ডিস-ডিকভেলার যৌথ প্রচেষ্টায় রানআউটে কাটা পড়েন তিনি। সবাই যাওয়া-আসার মিছিলে যোগ দিলেও একপ্রান্ত আগলে রাখেন টেলর।। বুক চিতিয়ে লড়তে থাকেন তিনি। এক পর্যায়ে হার মানেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানও। দলীয় ১৭১ রানে তিনি থিসারার শিকার হয়ে ফিরে গেলে মহাবিপর্যয়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। ফেরার আগে ৮০ বলে ৬ চারে ৫৮ রানের লড়াকু ইনিংস খেলেন টেলর।

শেষ পর্যন্ত সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। ৬ ওভার বাকি থাকতেই ১৯৮ রানে গুটিয়ে যায় তারা। এদিন শ্রীলংকার সেরা বোলার থিসারা পেরেরা। একাই ৪ উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়েকে ধসিয়ে দেন তিনি। ৩ উইকেট নিয়ে তাতে সামিল হন নুয়ান প্রদীপ।

আপনাদের মতামত প্রকাশ করুন