মালদ্বীপে দেশটির প্রধান বিচারপতি গ্রেফতার

মালদ্বীপে গ্রেফতার হয়েছেন দেশটির প্রধান বিচারপতি।

দেশটির সরকার সেখানে ১৫ দিনের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে সংসদ স্থগিত করে দেয়ার পরপরই গ্রেফতার হয়েছেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার দেশটির প্রধান বিচারপতি গ্রেফতার হন।

জরুরী অবস্থা ঘোষণার পরপরই শুরু হয় ধরপাকড়। মালদ্বীপে মানুষ ভীত-শঙ্কিত অবস্থায় আছে।

রাতে সুপ্রিম কোর্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ। আদালতে যেসব বিচারপতিরা ছিলেন তারা সবাই সেখানে আটকে রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

আরো আটক করা হয়েছেন মালদ্বীপে প্রায় তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা সাবেক রাষ্ট্রপতি মামুন আব্দুল গাইয়ুম।

রাজনৈতিক বন্দীদেরকে মুক্তি দেবার জন্য সম্প্রতি মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্ট যে আদেশ দিয়েছে সেটিকে মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিন।

প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনকে অভিশংসনে ও গ্রেপ্তারে সুপ্রিম কোর্টের পদক্ষেপ রুখতেই এত কিছু হচ্ছে বলে ধারনা।

এছাড়া আরেকজন সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে চলমান আরো একটি মামলাকেও অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছিলো সুপ্রিম কোর্ট।

হুট করে মালদ্বীপে জারি করা জরুরী অবস্থা প্রত্যাহার করার জন্য জোর দাবী জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র বিষয়ক সেক্রেটারি বরিস জনসন।

আর অ্যামেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এক টুইট বার্তায় হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, মালদ্বীপে কি হচ্ছে সারা দুনিয়া সেদিকে খেয়াল রাখছে।

সূত্র: বিবিসি

আপনাদের মতামত প্রকাশ করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *