আজকের দিন তারিখ ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ইং, শনিবার, ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী, রাত ১০:০৯
সর্বশেষ সংবাদ
আজকের সংবাদ, জাতীয়, প্রধান সংবাদ শীর্ঘই আসছে ডিএসইর স্ট্রাটেজিক পার্টনার

শীর্ঘই আসছে ডিএসইর স্ট্রাটেজিক পার্টনার


পোস্ট করেছেন: ঢাকা টেলিগ্রাফ | প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৮ , ৬:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আজকের সংবাদ,জাতীয়,প্রধান সংবাদ


ঢাকা টেলিগ্রাফ: স্ট্রাটেজিক পার্টনার অর্থাৎ কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে পাশে পেতে যাচ্ছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

তবে কোন প্রতিষ্ঠান  স্ট্রাটেজিক পার্টনার অর্থাৎ কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে আসছে তা এখনো বলা যাচ্ছে না। ডিএসই ‘র বিশ্বস্ত সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

তবে তথ্য সূত্রে বলা হচ্ছে সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জকে গুরুত্ব দিচ্ছে ডিএসই। এ স্টক এক্সচেঞ্জ দুটি বেশি দরে প্রস্তাব করায় তাদের সম্ভাবনাটা বেশি।

সূত্র থেকে জানা যায়, ডিএসইতে প্রযুক্তিগত সহযোগীতা দেয়ার মাধ্যমে ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ, নাসডাক এবং ফ্রন্টিয়ার মিলে গঠিত কনসোর্টিয়াম ১৫ টাকা দরে ২৫ দশমিক ০১ শতাংশ শেয়ার নেওয়ার প্রস্তাব করেছে।

তবে বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংন্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবে বলে ডিএসই’র সূত্রে জানা যায়।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ডিমিউচুয়ালাইজেশন আইন অনুযায়ী স্ট্রাটেজিক পার্টনার অর্থাৎ কৌশলগত বিনিয়োগকারী হবে নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদিত দেশি বা বিদেশি কোনো স্টক এক্সচেঞ্জ কিংবা বিনিয়োগ ব্যবস্থাপক কোম্পানি অথবা বিনিয়োগ ব্যাংক বা কোনো খ্যাতনামা আর্থিক প্রতিষ্ঠান।

স্টক এক্সচেঞ্জ পরিচালনাগত বিভিন্ন ধরনের উদ্ভাবনী কৌশল, উন্নততর প্রযুক্তিগত সুবিধা, ব্যবসা উন্নয়নে পরামর্শ এবং এর পাশাপাশি দেশের শেয়ারবাজার সম্পর্কে বিনিয়োগকারীদের আস্থা অর্জন করার জন্য কৌশলগত বিনিয়োগকারী পাবে ডিএসই।

তাই ডিএসইকে তার ২৫ শতাংশ শেয়ার কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে বিক্রির জন্য সমঝোতায় আসতে হবে। আর সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো বা ব্রোকারেজ মালিকরা স্টক এক্সচেঞ্জটির ৪০ শতাংশ শেয়ারের মালিকানায় থাকবেন। বাকি ৩৫ শতাংশ শেয়ার পরবর্তীতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে বিক্রি করতে হবে।

উল্লেখ্য, ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী হতে আগ্রহ প্রকাশ করা বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে- ব্রামার্স অ্যান্ড পার্টনার্স, নাসডাক, বিশ্বব্যাংকের সহযোগী প্রতিষ্ঠান আইএফসি, সিডিসি, জার্মান সরকারের মালিকানাধীন ব্যাংক কেএফডব্লিউ, যুক্তরাজ্যভিত্তিক সম্পদ ব্যবস্থাপক কিংসওয়ে ক্যাপিটাল, ইসলামি ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের সহযোগী ইসলামি করপোরেশন ফর ডেভেলপমেন্ট (আইসিডি), সম্পদ ব্যবস্থাপক কোম্পানি সুইস-প্রো ইনভেস্ট, নেদারল্যান্ডসভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কেপিএমজি, প্রাইস ওয়াটার হাউস কুপারস (পিডব্লিউসি), দুবাইভিত্তিক ফ্রন্টিয়ার ফান্ড এবং বাংলাদেশের স্কয়ার গ্রুপসহ খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠান।

আপনাদের মতামত প্রকাশ করুন